বরিশালে নতুন ৪০ জনসহ ৩১৯ জনের করোনা শনাক্ত

এম জুয়েল, বরিশাল : চিকিৎসক, নার্স ও পুলিশের সদস্যসহ বরিশালে নতুন করে আরও ৪০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩১৯ জন। এরমধ্যে বরিশাল নগরেই শনাক্ত হয়েছে ২৪৮ জন।

রোববার দিনগত রাতে জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ৬ জন ও জেলা পুলিশের ১ জন সদস্য রয়েছেন।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ৬ সদস্যের মধ্যে অতিরিক্তি পুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা রয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন স্টাফ অফিসার (সহকারী পুলিশ কমিশনার) আব্দুল হালিম। এছাড়া নতুন শনাক্তদের মধ্যে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২ জন রেজিস্ট্রার, ২ জন ইন্টার্ন ও ৩ জন নার্সসহ স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত ৭ জন সদস্য রয়েছেন।

বরিশাল নগরের বাজার রোড, সাগরদি, নথুল্লাবাদ, রূপাতলি, চকবাজার, সদর রোড, কাঠপট্টি, আমানতগঞ্জ, চরের বাড়ি, নাজির মহল্লা, ভাটিখানা, কাউনিয়া ও পুলিশ লাইন এলাকার মোট ২০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া বরিশাল সদর, বানারীপাড়া, মুলাদী ও বাবুগঞ্জ উপজেলার ১ জন করে এবং বাকেরগঞ্জ উপজেলার ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বরিশালের জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান জানিয়েছেন রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই আক্রান্ত ৪০ জন ব্যক্তির অবস্থান অনুযায়ী তাদের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের আশপাশে বসবাসের অবস্থান নিশ্চিত করে লকডাউন করার প্রক্রিয়া চলছে। তারা কোন কোন স্থানে যাতায়াত ও কাদের সংস্পর্শে ছিলেন তা চিহ্নিত করে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, এ পর্যন্ত বরিশাল জেলায় ৮৬ জন নারী এবং ২৩৩ জন পুরুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে শূন্য থেকে ২০ বছর বয়স পর্যন্ত আক্রান্ত ২১ জন, ২০ থেকে ৫০ বছর পর্যন্ত আক্রান্ত ২৪৮ জন, ৫০ থেকে তার ঊর্ধ্বে ৫০ জন।

স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গোটা বিভাগের মধ্যে বরিশাল জেলায় সব থেকে বেশি করোনায় আক্রান্ত রোগী রয়েছেন। আর জেলায় এরইমধ্যে করোনার হটস্পট হিসেবে জানান দিতে শুরু করেছে বরিশাল নগর।

বরিশাল জেলার মধ্যে এ পর্যন্ত বরিশাল নগরে ২৪৮ জন, সদর উপজেলায় ৮ জন, বাবুগঞ্জে ১৩ জন, উজিরপুরে ১১ জন, মেহেন্দীগঞ্জে ৬ জন, বাকেরগঞ্জে ১২ জন, হিজলায় ৪ জন, মুলাদীতে ৫ জন, বানারীপাড়ায় ৬ জন, আগৈলঝাড়ায় ৩ জন এবং গৌরনদীতে ৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত জেলায় মোট ৪৫ জন ব্যক্তি করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।
শীর্ষবাণী/প্রতিনিধি/এনএ