প্রণোদনা পেতে করোনা রোগী : রেলওয়ে হাসপাতালের কর্মচারী কারাগারে

ঢাকা অফিস : প্রণোদনা পেতে করোনা রোগী সেজে গ্রেফতার হওয়া রেলওয়ে জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন ক্যারিয়ার পদের কর্মচারী কুতুবে রাব্বানীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১ জুলাই) একদিনের রিমান্ড শেষে তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মঈনুল ইসলাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালতের মুগদা থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক ইউসুফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে সোমবার (২৯ জুন) ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রোববার (২৮ জুন) বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রেলওয়ে কর্মচারী হাসপাতালসহ তার বাসায় অভিযান চালিয়ে কুতুবে রাব্বানীকে করোনা পজিটিভের জাল সনদসহ আটক করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে মুগদা থানায় প্রতারণার অভিযোগে একটি মামলা হয়।

জানা যায়, করোনায় আক্রান্ত হলেই পাওয়া যাবে সরকারি প্রণোদনার টাকা। সেই টাকার লোভে পড়ে করোনা রোগীর সনদ নিয়েছিলেন রেলওয়ে জেনারেল হাসপাতালের কর্মচারী কুতুবে রাব্বানী। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে তার অফিসকে জানান। সে অনুযায়ী কাগজপত্রও দাখিল করে ছুটি কাটান তিনি। কিন্তু জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) গোপনে খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারে করোনায় আক্রান্ত হননি কুতুবে রাব্বানী।

রাব্বানী করোনা পজিটিভের নকল সনদ তৈরি করেন। নিজেই মুগদা মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রধান ডা. মৌসুমী সরকারের স্বাক্ষর জাল করে এ সনদ তৈরি করেন। প্রণোদনার টাকা হাতিয়ে নেয়ার উদ্দেশে এসব করেন রাব্বানী।