ভোলা সংলগ্ন মেঘনায় বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্যবাহী জাহাজ ডুবি, ব্যাপক ক্ষতি

চরফ্যাশন অফিস : ভোলার মেঘনায় মাদার ভেসেল থেকে গম নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে পেছন থেকে রোকনুর-১৯ এর ধাক্কায় বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্যবাহী জাহাজ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছে বসুন্ধরা গ্রুপ।

বুধবার (২৪ জুন) বিকেলে মেঘনার রামগতি সেলিম বাজারের কাছাকাছি এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ সময় বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্যবাহী জাহাজে থাকা ১৯৫০ মেট্রিক টন গম পানিতে ডুবে যায় এবং এমভি এসএ বাসার এর মাঝ বরাবর ফুটো হয়ে জাহাজের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়।

বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্যবাহী জাহাজ এমভি এস এ বাসার এর মাস্টার মো. ইউছুপ জানান, গভীর সমুদ্রের এমভি ইএল মাটাদর মাদার ভেসেল থেকে গম নিয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের ভাড়াকৃত গ্লোবাল মার্কেন্টাইল শিপিং এর এম ভি এসএ বাসার গম নিয়ে ঢাকায় আসছিল। বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্যবাহী এমভি এসএ বাসার জাহাজটি রামগতির সেলিম বাজার এলাকায় পৌঁছলে পেছন থেকে ওভার ক্রোসিং করতে গিয়ে সজোরে ধাক্কা দেয় রোকনুর-১৯। এতে এমভি এসএ বাসার এর মাঝ খানের হেজ ফুটো হয়ে গমের মধ্যে পানি ঠুকে পড়ে। কিছুক্ষণের মধ্যে বসুন্ধরা গ্রুপের জাহাজটি পানির নিচে নিমজ্জিত হতে থাকে। এর ফলে জাহাজে থাকা এক হাজার ৯০০ পঞ্চাশ মেট্রিকটন গম পানিতে ডুবে যায়। তাতে প্রায় ৫ কোটি টাকার পণ্য ও আট কোটি টাকার জাহাজ মিলে মোট ১৩ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষে দাবি করা হয়।

এদিকে চট্টগ্রামের রোকনুর-১৯ এর মাস্টার এর সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষে ক্ষতিপূরণের মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা যায়।
শীর্ষবাণী/এনএ