‘ডোনাল্ড ট্রাম্প বেঁচে আছেন, ভালো আছেন’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নির্বাচনের দিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অসততা দেখিয়েছেন, ফলাফল আসতে শুরু করার পর নিজ দলের সিনেটদের উপর রাগ ঝেড়েছেন। বেশ কয়েকটি টুইটে নির্বাচন নিয়ে হটকারী মন্তব্য করেছেন। ফলাফল আসার প্রথম দিকে প্রথা ভেঙে হোয়াইট হাউডের ইস্ট রুমে বিয়ার পার্টি করেছেন- কী করেননি ট্রাম্প!

মার্কিন মসনদের যাওয়ার ভোটের ফলাফল এখনও বাকি। প্রথমে নিজেকে জয়ী ঘোষণা দিলেও এখন খানিকটা মুষড়ে পড়েছেন ট্রাম্প। গত মঙ্গলবার শেষ রাতে জনসমক্ষে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ এনে বক্তৃতা দেওয়ার পর আর ট্রাম্প দেখা দেননি। টুইটারে তার নতুন কোনো পোস্ট না থাকায় গণমাধ্যম ও সাধারণ জনগণও খানিকটা অবাক। কী হয়েছে ট্রাম্পের!

ট্রাম্প বেঁচে আছেন এবং ভালোও আছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুরে তার নির্বাচনী প্রচারণা ব্যবস্থাপক বিল স্টেপিয়েন এ কথা জানিয়েছেন।

বিল স্টেপিয়েন বলেছেন, ‘আগেভাগেই ট্রাম্পকে পরাজিত বলা হচ্ছে, এটা ঠিক নয়। ডোনাল্ড ট্রাম্প বেঁচে আছেন এবং ভালো আছেন।’

এদিকে গতকাল যেখানে শেষ হয়েছিল সেখানেই ঝুলে আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভোটের ফল। ২৬৪-২১৪ ইলেকটোরাল ভোটের পরিসংখ্যান থেমে আছে রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মামলার কারণে। পাঁচ রাজ্যে এখনও চলছে ভোট গণনা। বিশ্লেষকরা ধারণা করছেন, নির্বাচন ফল পেতে লেগে যেতে পারে সপ্তাহ খানেক।

পেনসিলভানিয়া, নর্থ ক্যারোলাইনা, জর্জিয়া, নেভাদা এবং আলাস্কার রাজ্যে জয় পেতে ট্রাম্পকে অর্জন করতে হবে সবগুলোর ভোট। অপরদিকে প্রেসিডেন্টের আসনে বসতে বাইডেনকে পেতে হবে ৬ ভোট। একটি রাজ্যে এগিয়ে আছেন এ ডেমোক্র্যাট প্রার্থী, আরেকটিতে এগিয়ে এসেছেন। ব্যবধান এতটাই কম যে, যে কেউ জয়ী হতে পারেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নির্বাচনের অব্যবস্থাপনা ও অনিয়মের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য একটি ওয়েবসাইট উন্মুক্ত করছে ট্রাম্পের প্রচারণা শিবির। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এসব তথ্য সংগ্রহ করে অধিকতর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে শিবিরটির পক্ষ থেকে জানানো হয়। এর কিছু সময় পর জো বাইডেনের প্রচারণা ব্যবস্থাপক জেনিফার ডিলন জানান, তাদের কাছে থাকা আগাম তথ্য অনুযায়ী এটি নিশ্চিত যে, জো বাইডেনই যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন।