চরফ্যাশনে মন্দিরে চুরি, অজ্ঞাতদের নামে মামলা

মাইন উদ্দিন জমাদার: ভোলার চরফ্যাশনে হরিবাড়ি মন্দিরে দুধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে এই চুরির ঘটনা ঘটে। এসময়ে চোরচক্র মন্দিরের প্রতিমার সাথে থাকা স্বর্ণলংকার ও দানবক্সের নগদ টাকা নিয়ে যায়। এতে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে মন্দির কমিটি সূত্রে জানা গেছে। এঘটনায় ২৯ আগস্ট শনিবার মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সমির চন্দ্র মজুমদার বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে চরফ্যাশন থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করেন। সহকারী পুলিশ সুপার (চরফ্যাশন সার্কেল) শেখ সাব্বির হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

হরিবাড়ি মন্দিরের পুরোহিত সংকর গাঙ্গলী জানান, ২৮ আগস্ট শুক্রবার রাতে মন্দিরে কেউ ছিলোনা। হরিবাড়ি মন্দিরের প্রতিমার রাখার কক্ষটি তালাবদ্ধ ছিল। তিনি মন্দিরের পাশের ভবনের দ্বিতীয় তলার কক্ষে ঘুমিয়ে ছিলেন। গভীর রাতে যেকোন সময় চোরচক্র মন্দিরে জানালা ভেঙ্গে মন্দিরে ঢুকে প্রতিমার সাথে থাকা ঠাকুরের স্বর্ণের চুড়া, রুপার বাঁশি, প্রতিমার হাতের স্বর্ণের একজোড়া রুলি, স্বর্ণের তিনটি চেইনসহ প্রতিমার সাথে থাকা স্বর্ণের চারটি চোখ ও রুপার অলংকার এবং দানবাক্সে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সমির চন্দ্র মজুমদার বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে চরফ্যাশন থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চরফ্যাশন থানার ওসি মো. মনির হোসেন মিয়া জানান, মন্দিরে চুরির ঘটনায় অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত চলছে। তদন্তস্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
শীর্ষবাণী/এনএ