চরফ্যাশনে নিরবিচ্ছিন্ন স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছে ‘ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস’

চরফ্যাশন অফিস: করোনা ভাইরাস। স্মরণ কালের ইতিহাসে পৃথিবীর বড় সমস্যা। ভয় আর আতংক ছড়িয়ে দাপটের সাথে দাবিয়ে বেড়াচ্ছে গোটা পৃথিবী। আমাদের দেশ ও করোনার ভয় আর আতংকমুক্ত নয়।

বাংলাদেশে করোনা প্রাদুর্ভারের প্রাথমিক দিনগুলোতে এই ভয় আতংক ছিল সীমাহীন। যার প্রভাবে অনেক হাসপাতালে, প্রাইভেট ক্লিনিকের চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফরা কর্মস্থল ছেড়ে লোক চক্ষুর অন্তরালে চলে যান। অনেক বেসরকারী ক্লিনিক অতি সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসাবে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়। ফলে সাধারণ রোগীরা সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েন।

পরিস্থিতি বিবেচনায় করোনার আতংকের মধ্যে রোগীর সেবা নিরবিচ্ছিন্ন রাখার ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম চরফ্যাশনের ‘ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস’ নামের প্রাইভেট ক্লিনিক। গুরুতর অসুস্থ রোগীদের রাখার জন্য ১০টি বিশেষায়িত শয্যার ব্যবস্থা আছে। স্বল্প খরচে পরীক্ষা ও রোগী পরিবহনের এ্যাম্বুলেন্স সুবিধা নিশ্চিত করছেন ফাস্ট কেয়ার কর্তৃপক্ষ।

ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ মিল্লাত এলাহী জানান, হৃদরোগ, মেডিসিন, বাত জ্বর, উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞ এবং চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ নাহিদ হাসান, চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সার্জারী ও অর্থপেডিক চিকিৎসক ডাঃ মোঃ আঃ হাই ও চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গাইনী, প্রসূতি চিকিৎসক ও সার্জন ডাঃ সাফিয়া তানভির এখানে নিয়মিত রোগী দেখছেন।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘শীর্ষবাণী ডটকম’ এর সঙ্গে আলাপকালে ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও জানান, এখানে নাম মাত্র খরচে ডিজিটাল এক্স-রে, কম্পিউটারাইজড প্যাথলজি, কালার আল্ট্রাসনোগ্রাফী, ইসিজি, মেডিকেল চেকআপ, হরমোন, নেবুলাইজার এবং কালার ডপলার ইকো-সার্ভিস করা হয়।

ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস এর পরিচালক (ক্লিনিক) ও পৌর ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মিজানুর রহমান মনজু জানান, করোনা প্রাদুর্ভাবে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা মোকাবেলায় ক্লিনিক কে সর্বদা প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ফাস্ট কেয়ার মেডিকেল সার্ভিসেস এর পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) সাইফুল ইসলাম জানান, করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে আমরা সাধারণ রোগীদের নিরবিচ্ছিন্ন স্বাস্থ্য সেবা দিচ্ছি। ক্লিনিকের চিকিৎসক, নার্স, বিভিন্ন বিভাগের স্টাফ এবং পরিচালনা পর্ষদ করোনার বিষয়ে সচেতন আছেন, কিন্তু ভীত নন।
শীর্ষবাণী ডটকম/এসএস