চরফ্যাশনে নববধূকে পিটিয়ে তাড়িয়ে দিলেন শ্বশুর-শাশুড়ী

জামাল মোল্লা: প্রত্যাশিত যৌতুকের দাবি মিটাতে না পারায় নববধূকে পিটিয়ে স্বামীগৃহ থেকে বের করে দিয়েছেন শ্বশুর শাশুড়ী। বেধরক মারধরে আহত নববধূকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিয়ে বাবার বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন গ্রামবাসী। আজ বৃহস্পতিবার শশীভূষণ থানার রসুলপুর গ্রামের আইয়ুব আলী মাঝি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতিত নববধূ নিপুন শীর্ষবাণী ডটকমকে জানান, ৫ মাস আগে রসুলপুর গ্রামের আইয়ুব আলী মাঝির ছেলে মোঃ বেল্লাল মাঝির সাথে তার বিয়ে হয়। আলোচনার মাধ্যমে সম্পন্ন এই বিয়েতে যৌতুকের কোন প্রসঙ্গ ছিলনা। কিন্তু বিয়ের পর থেকে ৩ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়। এ কারণে ধরে বিয়ের ৫ মাস পর নববধূর আর শ্বশুর বাড়ি যাওয়া হয় নাই।

আজ বৃহস্পতিবার ১১জুন সকালে দক্ষিণ আইচা থানার চর আর কলমী গ্রামের মোঃ উজ্জল মিয়ার বাড়ি থেকে স্বামী বেল্লাল মাঝির সাথে প্রথমবার তিনি রসুলপুর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে যান। যৌতুকের বিষয় নিষ্পত্তি না করে এভাবে নববধূর শ্বশুরালয়ে আসার ঘটনায় শ্বশুর শাশুড়ী ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন। বিক্ষুদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়ী পুত্র বেল্লাল মাঝি এবং পুত্রবধূ নিপুকে পিটিয়ে ঘর থেকে বের করে দেন।

বর্তমানে তারা নিপুনদের চর আর কলমী গ্রামে বাবার বাড়িতে আছেন। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের করা হয়নি। নববধূ নিপুন শীর্ষবাণীকে জানান, অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করে তিনি মামলা দায়ের করবেন।
শীর্ষবাণী/এনএ