চরফ্যাশনে জমি বিরোধ কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত ৪

মাইন উদ্দিন জামাদার, চরফ্যাশন: চরফ্যাশন রসুলপুর ইউনিয়নে জমি বিরোধ কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামালায় বৃদ্ধা নারীসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। ২৭ জুলাই সোমবার সকালে রসুলপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের কলেরহাট এলাকায় এঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন। চরফ্যাশন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক গুরুতর আহত বৃদ্ধা নারী হাওয়ানুর বেগমকে (৬৫) উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল রেফার করেন। অপর ৩ জনকে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন- হাওয়ানুর বেগম (৬৫), ইলিয়াস আখন (২৪), পারভেজ আখন (৪৫) ও জাকির শিকদার (৩৫)। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে আহতদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মো.পারভেজ অভিযোগ করেন, রসুলপুর মৌজার ২৫৯০ নং খতিয়ানের ১৮৯/১ এর দাগে আমার মা হাওয়ানুর, খালা আঞ্জুরা বিবি, মালেকা পারভীন, শাহেরজান বিবি ও মামা আব্দুস সোবহান এবং কাজল বেপারীর ১ একর জমির মালিক থেকে ভোগ দখলে আছেন। ওই জমিতে ৫০ বছর যাবত ভোগ দখলে বিদ্যমান আছেন তারা।

সম্প্রতি সময়ে ওই জমি সরকার খাস খতিয়ানে অর্ন্তভুক্ত করলে দখলীয় সুত্রে ওই জমি পরিবারের সাথে সমঝোতায় পুর্ব ওয়ারিশ হিসেবে ওই জমি আমার নামে বন্ধবস্ত দেওয়া হয় এবং ভোগ দখল করি। প্রতিপক্ষ রফিকুল ইসলাম সাঝী গংরা খলিল ঘরামীর কাছ থেকে ১নং খতিয়ানের ১৮৮ দাগে ৪০ শতাংশ জমি খরিদ করে আমার দখলীয় বন্ধবস্ত সূত্রে মালিকানাধীন জমির মালিকানা দাবি করে দখলের হুমকি দেয়। পরে সেই জমি নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা কয়েক দফা সালিশ ফয়সাল করে দিলেও রফিকুল ইসলাম সাঝী গংরা ওই সালিশ ফয়সালা উপেক্ষা করে আমাদের ওই জমি থেকে একধিকবার উচ্ছেদের চেষ্টা করেন।

আজ ২৭ জুলাই সোমবার সকালে তার দখলীয় জমিতে কাজ করতে গেলে রফিকুল ইসলাম গংরা সংঘবদ্ধ হয়ে তাদের ওপর আর্তকিত হামালা করে মারধর করে গুরুতর জখম করে।

এসময়ে তাদেরকে উদ্ধার করতে বৃদ্ধা মা হাওয়ানুর বেগম এগিয়ে এলে তাকে বেদড়ক মারধর করে চোখ উপড়ে ফেলার চেষ্টা করেন। তাদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন। চরফ্যাশন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বৃদ্ধা হাওয়ানুর বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে রেফার করেন। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম সাঝীর বলেন, ওই জমিটি নিয়ে তাদের সাথে আমাদের বিরোধ চলমান আছে। তার ওই জমিতে জোর করে কাজ করতে গেলে আমার বাধা দেই । এসময়ে তারা আমাদের ওপর হামলা করে মারধর করেন। শশীভূষণ থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, এঘটনায় থানায় একটি মামলার এজাহার কপি পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
শীর্ষবাণী ডটকম/এসএসআই