করোনায় মারা গেলেন সাবেক সচিব বজলুল করিম

ঢাকা অফিস : কোভিড-১৯ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে এবার মারা গেলেন সাবেক সচিব বজলুল করিম চৌধুরী। রোববার বেলা ১২ টায় রাজধানীর মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন।

তিনি জানান, বজলুল করিম চৌধুরী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই বেলা ১২টার দিকে মারা যান তিনি।

বজলুল করিমের ঘনিষ্ঠ একজন জানান, তিনি কোভিড-১৯ সংক্রমণের শিকার হয়ে গত ১৫ দিন ধরে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) নেয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

বজলুল করিম চৌধুরী ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল অবসরোত্তর ছুটিতে (পিআরএল) যান। এর আগের দিন তাকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়ে আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। পদোন্নতির পর তাকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসসি) করা হয়।

বিসিএস সপ্তম ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা বজলুল করিম চৌধুরী চাকরি জীবনে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যান, ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সফলতার সঙ্গে পালন করেন।

কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে দেশে শনিবার পর্যন্ত মোট ৬১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া গতকাল পর্যন্ত মোট ৪৪ হাজার ৬০৮ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্ত করা হয়। এর ১০ দিন পর দেশে প্রথম মৃত্যু হয় করোনায়।

করোনায় এর আগে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব ড. সাদত হোসেনের মৃত্যু হয়। আরও একজন অতিরিক্ত সচিব না ফেরার দেশে চলে যান করোনায়।
শীর্ষবাণী ডটকম/এনএ