এবার স্বাস্থ্য শিক্ষা সচিব সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত

ঢাকা অফিস : স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়েল স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব আলী নূর সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় আইসোলেশনে আছেন। তিনি ও তাঁর স্ত্রী বর্তমানে সুস্থ হওয়ার পথে। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। রোববার দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইনুল ইসলাম প্রধান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব আলী নূর ও তার স্ত্রী নাসরিন আকতার গত ৫ দিন যাবৎ সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় আইসোলেশনে আছেন। তারা বর্তমানে সুস্থ হওয়ার পথে।

এর আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একই মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আব্দুল মান্নানের সহধর্মিণী কামরুন্নাহার মৃত্যুবরণ করেন। শনিবার (১৩ জুন) দিবাগত রাত ১২টার পর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচে) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। কামরুন্নাহার দুই পুত্র ও এক কন্যাসন্তানের জননী।

একনজরে আলী নূর
২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর থেকে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মো. আলী নূর। এর আগে তিনি সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিটের (সিপিটিইউ) মহাপরিচালক ছিলেন।

জনাব আলী নূর বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডার-এর ১৯৮৬ (অষ্টম) ব্যাচের একজন সদস্য। তিনি ১৯৮৯ সালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, দিনাজপুর এ সহকারী কমিশনার হিসেবে যোগদানের মাধ্যমে প্রশাসন সার্ভিসে যাত্রা শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি সহকারী কমিশনার, এনডিসি (নেজারত ডেপুটি কালেক্টর), আরডিসি (রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর), উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট, ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এবং জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে মাঠ পর্যায়ে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (নন-ক্যাডার), মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথরিটি-এর পরিচালক, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে যুগ্মসচিব এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নবাবগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

প্রশিক্ষণসহ পেশাগত বিভিন্ন কাজে তিনি যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, সুইডেন, তুরস্ক, পেরু, তাজিকিস্তান, ব্রাজিল, চীন, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, ভুটান ও ফিলিপাইন ভ্রমণ করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই কন্যা সন্তানের জনক।
শীর্ষবাণী ডটকম/এনএ