একদিনে শনাক্ত সাত লাখ ছাড়াল, মৃত্যু ১২ হাজারের বেশি

শীর্ষবানী ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে আবারও ভয়ংকর হতে শুরু করছে মহামারি করোনা ভাইরাস। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ১২ হাজারের বেশি প্রাণ কেড়ে নিয়েছে ভাইরাসটি। আর নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে সাত লাখ ১৬ হাজারের বেশি। বর্তমানে বিশ্বজুড়ে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সাত কোটি ৫৯ লাখ। এ মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৬ লাখ ৮০ হাজার।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সাত লাখ ১৬ হাজার ৬০৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ৩৪১ জনের।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে একদিনে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন দুই লাখ ৫৪ হাজার ৬৮০ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৭৯৪ জনের।

২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে আছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে একদিনে ৫২ হাজার ৩৮৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে ৮১১ জনের।

দিনের আক্রান্তে তৃতীয় আর মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে জার্মানি। দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ৫৫৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৮৩৮ জনের।

একদিনে আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে ২৮ হাজার ৫৫২ এবং মৃত্যু হয়েছে ৬১১ জন মানুষের।

এদিকে দিনের হিসেবে আক্রান্ত বেড়েছে যুক্তরাজ্যে। আক্রান্তে পঞ্চম স্থানে থাকা দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ হাজার ৫০৭ জন মানুষ শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৪৮৯ জন মানুষের।

সবমিলে আক্রান্তে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত-মৃত্যুর হার কমেছে। ২৬ হাজার ৯৯১ জন আক্রান্ত নিয়ে দৈনিক আক্রান্তের পরিসংখ্যানে ভারতের অবস্থান ষষ্ঠ। একদিনে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩৪২ জনের। এদিন দেশটিতে মোট সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা এক কোটি ছাড়িয়েছে।

এছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে শনাক্ত হয়েছে ১৭ হাজার ৯৯২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৭৪ জন মানুষের। আর ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে ১৫ হাজার ৬৭৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩৭৪ জনের।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

শীর্ষবানী/এন