ইরানের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে উদ্বেগ সৌদি বাদশাহর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের পারমাণবিক উন্নয়ন ও ব্যালিস্টি ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে উদ্বেগ সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ। বৃহস্পতিবার দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে তিনি এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। পাশাপাশি ইরানের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতিও আহ্বান জানান তিনি।

দীর্ঘদিন পর জনসমক্ষে ভাষণ দিয়েছেন ৮৪ বছরের বাদশাহ সালমান। এর আগে সর্বশেষ গত সেপ্টেম্বরে এক ভিডিও লিংকের মাধ্যমে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে বক্তব্য দেন তিনি।

ভাষণে ইরানের সম্প্রসারণবাদ, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে তেহরানের ক্রমবর্ধমান হস্তক্ষেপ, ‘সন্ত্রাসবাদের লালন’ ও সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ নিয়ে নিজ দেশের উদ্বেগের কথা জানান সৌদি বাদশাহ। এসব উদ্বেগ নিরসনে এগিয়ে আসতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। তেহরান যাতে ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র এবং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে না পারে সে বিষয়েও বিশ্ব সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন সৌদি বাদশাহ।

সৌদি বাদশাহর এমন বক্তব্যের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ইরানের কাছ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে ইতোপূর্বে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে বিভিন্ন সশস্ত্র গোষ্ঠীকে অস্ত্র সরবরাহের কথা অস্বীকার করেছে তেহরান।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধকেও মূলত সৌদি-ইরানের প্রক্সিযুদ্ধ বলে ব্যাপকভাবে মনে করা হয়ে থাকে। ইরান সমর্থিত বিদ্রোহীরা দেশটির সৌদি সমর্থিত শাসককে উৎখাতের পর থেকেই মধ্যপ্রাচ্যের দারিদ্রপীড়িত দেশটিতে হামলা শুরু করে সৌদি সামরিক জোট।